বুয়েট শিক্ষা’র্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যা মা’ম'লার আ’সামিদের মধ্যে প্রথম স্বী’কারো’ক্তিমূলক জবানব’ন্দি দিয়েছেন ইফতি মোশাররফ সকাল। আ’দালতে ১৬৪ ধারা'য় তার জ’বানব’ন্দি রেক’র্ড ক'রা হয়। জবানব’ন্দী নেওয়ার পর সকালকে কেরাণীগ’ঞ্জ কে’ন্দ্রীয় কা’রা'গারে প্রে’রণ ক'রার নি’র্দেশ দেন বি’চারক।

সকাল বুয়েটের বায়ো মেডিকেল ই’ঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় ব’র্ষের এই ছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছা'ত্রলী'গের উপ-সমাজসেবা স’ম্পাদক ছিলেন। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বিকেলে ইফতি মোশাররফ সকালকে মহানগর হাকিম সাদবির ইয়াসির আহসান চৌধুরী আ’দালতে নিয়ে যান মা’ম'লার তদ’ন্ত ক’র্মকর্তা গো’য়েন্দা পু’লিশের পরিদ’র্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান।

জবানব’ন্দি রেক’র্ডের আগে আ’দালতে দেওয়া তদ’ন্ত ক’র্মকর্তার প্র’তিবেদনে বলা হয়, রিমা’ন্ডে সকাল স্বী’কার ক'রেছে যে ছা'ত্রলী'গের অ’ন্যদের স’ঙ্গে সে আবরারকে প্র’হার ক'রেছে যাতে তার মৃ’ত্যু হয় এবং তিনি স্বী’কারো’ক্তিমূলক জবানব’ন্দি দিতে চান।

উ’ল্লেখ্য, রবিবার মধ্যরাতে ফাহাদকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অ’চেতন অব’স্থায় উ’দ্ধার ক'রে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হা'সপাতা'লে নেওয়া হলে ক’র্তব্যরত চিকি’ৎসক তাকে মৃ ত ঘো’ষণা ক'রেন। এ ঘ’টনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বা'দী হয়ে রাজধানীর চকবাজার থা’নায় ১৯ জনের বি’রুদ্ধে একটি হ’ত্যা মা’ম'লা দা’য়ের ক'রেন।

সূত্র: জুমবাংলানিউজ