ক্রীড়াঙ্গনে জুয়ার আগ্রাসনের যে খবর এতদিন ‘ওপেন সিক্রেট’ ছিল, আ’ইনশৃ’ঙ্খলা বা’হিনীর সাম্প্রতিক অ’ভিযা'নে তা প্রকাশ্য হয়ে প’ড়েছে। বেরিয়ে আ’সছে একের পর এক চ’মকে দেওয়ার মতো খবর। ভিক্টোরিয়া ক্লাব কিংবা কলাবাগানের পর এবার দেশের অন্যতম সেরা মোহামেডান ক্লাবের ভা'রপ্রা'প্ত সভাপতি ও বিসিবির পরিচালক লোকমান হোসেন ভুঁইয়াকে গ্রে'প্তা'র ক'রা হয়েছে। বেরিয়ে এসেছে চা'ঞ্চল্য'ক'র সব তথ্য।

ক্যাসিনো ব্যবসা এবং অবৈ’ধভাবে বিদেশি মদ রাখার অ’ভিযো'গে বুধবার রাতে রাজধানীর মনিপুরী পাড়ার নিজ বাসা থেকে লোকমানকে গ্রে'প্তা'র ক'রে র‍্যাব। প্রাথমিকভাবে ক্যাসিনো ব্যবসার স’ঙ্গে সম্পৃক্ততা স্বী’কার ক'রেন তিনি। লোকমান জা’নিয়েছেন, মোহামেডান ক্লাবে কাউন্সিলর ও যুবলীগ নে'তা সাঈদের নেতৃত্বেই চলত জুয়ার আসর। ক্যাসিনোর ভাড়া হিসেবে প্রতিদিন ৭০ হাজার টাকা পেতেন বিসিবি পরিচালক লোকমান।

এই ক্যাসিনো ব্যবসা থেকে লোকমান বিপুল অর্থ উপার্জন ক’রেছেন। যার পরিমাণ প্রা'য় ৪১ কোটি টাকা। এই ৪১ কোটি টাকার বেশিরভাগ অস্ট্রেলিয়ায় দুই ব্যাংকে জমা ক’রেছেন লোকমান। আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের সভাপতি এ কে এম মমিনুল হক সাঈদের সহায়তায় মোহামেডানে তিনি ক্যাসিনো গড়ে তোলেন। এছাড়া ৩ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পত্তি রয়েছে এই বিসিবি পরিচালকের। যা তিনি অস্ট্রেলিয়ার এএনজেড ব্যাংক এবং কমওয়েলথ ব্যাংকের শাখায় গচ্ছিত রেখেছেন।

সূত্র: কালেরকণ্ঠ