নাটোরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে নতুন পেঁয়াজ। এ অব’স্থায় একদিনের ব্যবধানে অর্ধেকে নেমে এলো পেঁয়াজে'র দাম। স্থা’নীয়ভাবে উৎপাদিত পেঁয়াজ বাজারে আসায় কমেছে দাম। তবে এখনো পুরোনো পেঁয়াজ আগের দামেই বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে নাটোরের বাজারে প্রথম আসে নতুন দেশি পেঁয়াজ। শহরের স্টেশন বাজারে প্রথমে নতুন পেঁয়াজ ১০০ টাকা কেজিতে বিক্রি শুরু হয়। দুপুরে দাম কমে ৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয় নতুন পেঁয়াজ।

নাজমা বেগম নামে এক ক্রেতা জা’নান, মঙ্গলবার তিনি ২১০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ কিনেছেন। বুধবার দাম কম দেখে ৮০ টাকায় নতুন এক কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন।

স্থা’নীয় পেঁয়াজ ব্যবসায়ী লিয়াকত আলী বলেন, বাজারে সরবরাহ বৃ’দ্ধি পাওয়ায় পেঁয়াজে'র দাম কমতে শুরু করেছে। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে পেঁয়াজে'র দাম স্বা’ভাবিক হবে।

পেঁয়াজ ব্যবসায়ী আবদুল ওয়াহাব বলেন, অসময়ের বৃষ্টিতে নাটোরের লালপুরসহ স্থা’নীয় বেশ কয়েকটি এলাকায় পেঁয়াজ ন’ষ্ট হয়ে যায়। পানি নামা’র পর সেসব জমিতে নতুন করে পেঁয়াজ লা’গানো হয়েছে সপ্তাহ দুয়েক পর বাজারে আসবে সেগুলো। নতুন পেঁয়াজ বাজারে পুরোপুরি এলে দাম স্বা’ভাবিক হয়ে যাবে।

পেঁয়াজ ব্যবসায়ী শাহ’জাহান আলী বলেন, বেশি দামে কেনা পেঁয়াজ, তাই ২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি। নতুন পেঁয়াজ বাজারে এলে আমাদেরও কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি ক’রতে হবে।