ভারতের প’শ্চিমবঙ্গের রানাঘাটের স্টেশনের ভবঘুরে ছিলেন রাণু মণ্ডল। সোশ্যাল মিডিয়ায় গান গেয়ে ভা'ইরা'ল হ’য়েছেন। এরপরে শিল্পী হিমেশ রেশামিয়ার স’ঙ্গে গান গেয়ে পরিচিত হয়ে যান। এরপরে ভ’ক্তের ভালোবাসায় সিক্ত হলেও রাণু তা ধ’রে রাখতে পারেননি।

পূজার থিম সং, দেশে-বিদেশে শো, তারকাদের স’ঙ্গে ওঠাবসা অব্যা’হত থাকে রাণুর জয়যাত্রা। কিন্তু অ’ভিযোগ, রাতারাতি স্টার হয়ে গিয়ে নাকি বদলে গি’য়েছেন রাণু!

অ’হংকার বেড়ে গেছে। সেই স’ঙ্গে স্ব’ভাবও পা’ল্টেছে। নি’ন্দুকেরা বলছেন, সেই কারণেই নাকি ভ’ক্তরাও আজকাল তাকে আর তেমন আদলে দিচ্ছেন না! অ’ভিযোগ, যে সাধারণ মানুষ রাণুকে স্টার ‘বা’নিয়েছিল, তাদের স’ঙ্গে ই আর ঠি’কঠাক ব্যবহার ক'রেন না রাণু।

ভ’ক্তরা তাকে দেখে দৌঁড়ে এলে তিনি বি’র’ক্ত হয়ে বলেন, গায়ের ওপর না উ’ঠতে! তাদের স’ঙ্গে সেলফি তুলতেও তার বড্ড অনীহা। লাইম'লাইটে যাওয়ার স’ঙ্গে স’ঙ্গে রাণাঘাটের পুরনো বাড়ি ছে'ড়ে নতুন বাড়িতে উঠে যান রাণু।

নি’ন্দুকেরা বলছেন, ই’দানিং নাকি আর তেমন কাজ পাচ্ছেন না রাণু, তাই মিডিয়ার মু’খোমুখি হ’চ্ছেন না। বলা যায়, মিডিয়া বিমুখ হয়ে প’ড়েছেন। নে’টিজেনরা ব’লছেন, অ’হংকারই কাল হল রাণুর! ধ’রাকে সরা জ্ঞান করলেন রানাঘাটের রাণু মণ্ডল।

অ’হংকারের কারণেই তার প’তন। গ্ল্যা’মা’রের চা’কচিক্য ছে’ড়ে ফি’রছেন সেই পুরনো চেহারা'য় । জি নিউজ বলছে, তারকা থেকে ধীরে ধীরে নিজে'র পুরনো জায়গায়ই ফি’রে যা’চ্ছেন।